মেনু নির্বাচন করুন

খাস সাত বাড়ীয়া উচ্চ বিদ্যালয়

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
মো: মোবাক্ষর হোসেন 0 hmobakhor@yahoo.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

ষষ্ঠ

সপ্তম

অষ্টম

নবম

দশম

ছাত্র

ছাত্রী

ছাত্র

ছাত্রী

ছাত্র

ছাত্রী

ছাত্র

ছাত্রী

ছাত্র

ছাত্রী

১১০

৭৭

৯৬

৭২

১১১

৫২

৭০

৪৭

৬০

৪৭

৯৫%

ক্রমিক নং    

গর্ভর্ণিং বডির সদস্যগনের নাম        

ক্যটাগরী

০১  

জনাব মো: লুৎফর রহমান            

সভাপতি

০২

মো: আব্দুর রহমান

কো-অপ্ট সদস্য

০৩

আলহাজ মো: আজিম উদ্দিন

অভিভাবক সদস্য

০৪

মো: আ: মান্নান

অভিভাবক সদস্য

০৫

মো: রেজাউল করিম

অভিভাবক সদস্য

০৬

মোছা: শাফিয়া খাতুন

মহিলা অভিভাবক সদস্য

০৭

গোলাম ছরোয়ার

শিক্ষক প্রতিনিধি

০৮

মো: সুলতান মাহমুদ

শিক্ষক প্রতিনিধি

০৯

মো: মোবাক্ষর হোসেন

প্রধান শিক্ষক প্রতিনিধি

পরীক্ষার নাম

বছর

মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা

মোট কৃতকার্য

পাশের হার

জিপিএ প্রাপ্ত

এস.এস.সি

২০০৯

৯৪

৫৩

৫৬.৩৮%

০১

এস.এস.সি

২০১০

১০১

৯৪

৯৩.০৬%

০৮

এস.এস.সি

২০১১

১১২

৯৩

৮৩.০৩%

এস.এস.সি

২০১২

১১৫

৯৭

৮৪.৩৪%

০৮

এস.এস.সি

২০১৩

১০৩

৯৩

৯০.২৯%

০৫

জে.এস.সি

২০১০

১০৫

৬৩

৬০%

০০

জে.এস.সি

২০১১

১৪৪

১২২

৮৫%

০২

জে.এস.সি

২০১২

১৩৯

১২০

৮৬.৩৩%

০১

জুনিয়র বৃত্তি: ২০০৬- ০৩ জন
                    ২০০৮-  ০৩ জন
                    ২০০৯- ০৪ জন
                    ২০১০- ০৯ জন
                    ২০১১- ০৪ জন

                    ২০১২-০১জন

অত্র বিদ্যালয় হতে প্রতিটি এস,এস,সি/জে,এস,সি পরীক্ষায় জি,পি-৫ রয়েছ।

•    ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার পরিকল্পনা বাস্তাবায়নের লক্ষে শিক্ষার্থীদেরকে যুগোপযোগী করে গড়ে তোলা।
•    দেশপ্রেম, মানবতা, নৈতিক মূলবোধ ও সৃজনশীল প্রতিভাবিকাশের মাধ্যমে সুনাগরিক হিসাবে শিক্ষার্থীদের গড়ে তোলা।
•    ছাত্র- ছাত্রীদের শতভাগ পরীক্ষায় অংশ গ্রহন এবং শতভাগ জি,পি,এ ৫ পাওয়ার মত দক্ষ করে শিক্ষার্থীদের গড়ে তোলা।
•    ছাত্র- ছাত্রীদের চারিত্রিক ও মানবিক গুনাবলীর সাধনের মাধ্যমে ভবিষ্যৎ মানব সম্পদ উন্নয়ন।
•    মান সম্মত সুশিক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মেধার পরিপূর্ণ বিকাশ।
•    প্রতিষ্ঠানিক শিক্ষাদান কার্যক্রম বাস্তবায়নের মাধ্যমে গৃহশিক্ষকের উপর নির্ভরশীলতা হ্রাস।
•    সহ পাঠ্যক্রম কার্যবলীর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের সৃজনশীলতা, বাচন ভঙ্গি, শারীরিক দক্ষতা ইত্যদির উন্নয়ন ঘটান।

0



Share with :

Facebook Twitter